শসার ১০ টি আশ্চর্যজনক স্বাস্থ্য উপকারিতা

শসার স্বাস্থ্য উপকারিতা

শসার ১০ টি আশ্চর্যজনক স্বাস্থ্য উপকারিতা:

আপনি যদি আপনার খাবারে আরও বেশি শাকসবজি যুক্ত করে আপনার ডায়েটকে স্বাস্থ্যকর করতে চান তবে শসা একটি দুর্দান্ত পছন্দ। শসা প্রচলিত ডায়েটের পাশাপাশি স্পা হিসাবে সারা বিশ্বে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।

শসাতে নিম্নলিখিত সুবিধা রয়েছে: সম্ভাব্য অ্যান্টিবায়েটিক, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্রিয়াকলাপ, বিষাক্ত এবং বর্জ্য পরিষ্কারের ক্রিয়া, ত্বকের জ্বালাপোড়নের বিরুদ্ধে প্রশান্তি প্রদান এবং কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ। শসাতে ১০ টি স্বাস্থ্য সুবিধা রয়েছে যা নিম্নে বর্নিত হলো।
শসার আশ্চর্যজনক স্বাস্থ্য উপকারিতা
১. আপনাকে হাইড্রেটেড থাকতে সহায়তা করুন

শসাতে 95.2 শতাংশ জল, যার অর্থ 5-আউন্সে 4.8 আউন্স বা 150 মিলি জল থাকে। এটি আপনার প্রতিদিনের পানি খাওয়ার প্রায় 26 শতাংশ পুরন করে।

২. হার্ট/হৃদপিন্ড ভালো রাখে

শসাতে পটাশিয়াম (প্রতি কাপে 152 মিলিগ্রাম) থাকে যা রক্তচাপ কমাতে সহায়তা করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের 2 শতাংশেরও কম প্রাপ্তবয়স্করা প্রতিদিন 4,700 মিলিগ্রাম পটাসিয়াম গ্রহণ করে৷ শসা খাওয়া আপনার পটাসিয়াম খরচ কমানোর এক সহজ উপায়।

৩. আপনার মস্তিষ্ককে স্নায়ুবিক রোগ থেকে রক্ষা করে:

ফিশেটিন নামক প্রদাহ বিরোধী পদার্থ শসা, স্ট্রবেরি এবং আঙ্গুরে উপস্থিত রয়েছে। সম্প্রতি বলা হয়েছে যে, ফিশেটিন মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বয়স সম্পর্কিত স্নায়ুবিক রোগগুলি থেকে দুরে রাখে।

৪) বার্ধক্যজনিত প্রভাব থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করে

ত্বকের যত্নে শসা ব্যবহার করার কারণ রয়েছে। কসমেটিক পণ্যগুলিতে এটি অ্যান্টি-রিঙ্কেল এজেন্ট হিসাবে কার্যকর। আমাদের ত্বককে বার্ধক্যের প্রভাবগুলি থেকে রক্ষা করে।

৫. শরীরে প্রদাহের সাথে লড়াই করে এবং ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করে

শসা শরীরে প্রদাহজনক প্রতিক্রিয়া কমাতে সহায়তা করে। শসাতে লিগানানস নামক পলিফেনল রয়েছে যা কিছু নির্দিষ্ট ক্যান্সার এবং কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকি কমাতে পারে।

৬. ব্যথা উপশম

ফ্ল্যাভোনয়েডস যা প্রদাহ/ব্যথা বিরোধী পদার্থ । শসাতে থাকা ট্যানিন র‌্যাডিকেল মুক্ত করে, ব্যথা কমাতে দেখা গেছে

ইয়ং ফার্মাসিস্ট জার্নালে বর্ণিত হিসাবে, "শসা মাথা ব্যথার জন্য ব্যবহৃত হয়; বীজ ঠান্ডা এবং মূত্রবর্ধক হয়, ফলের রস পুষ্টিকর এবং অ্যান্টি-পিম্পল হিসাবে ব্যবহৃত হয়।"

৭. দুর্গন্ধযুক্ত শ্বাস দুর করে

দুর্গন্ধযুক্ত শ্বাস সাধারণত মুখে ব্যাকটেরিয়া দ্বারা হয়। আঁশযুক্ত ফাইবার এবং জল সমৃদ্ধ সবজি আপনার মুখের লালা উৎপাদন বাড়িয়ে তুলতে পারে যার ফলস্বরূপ মুখের দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটিরিয়া ধুয়ে ফেলতে সহায়তা করে।

৮. আপনার হাড় রক্ষা করে

শসা ভিটামিন K এর একটি ভাল উৎস। এক কাপ শসাতে ভিটামিন K এর প্রস্তাবিত দৈনিক গ্রহণের 22 শতাংশ থাকে। এই ভিটামিন K হাড়ের জন্য অপরিহার্য, কারণ কম ভিটামিন K গ্রহণ হাড় ভাঙ্গার জন্য দায়ী। হাড়ে ক্যালসিয়াম শোষণের উন্নতির জন্য ভিটামিন K গুরুত্বপূর্ণ।

৯. কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে

শসাতে প্রচুর পরিমাণে জল থাকে এবং ফাইবার থাকে। জল এবং ফাইবার উভয়ই খাদ্য পরিপাকতন্ত্রের মধ্য দিয়ে দ্রুত এবং সহজে যেতে সাহায্য করে। ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে সহায়তা করে।

১০. স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখতে সহায়তা করে 

শসাতে খুব কম ক্যালোরি থাকে (প্রতি কাপে 16 ক্যালোরি) এবং ফাইবারও থাকে। এবং ফাইবারযুক্ত খাবারগুলি স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখতে সহায়তা করে।

No comments:

Post a Comment