ঝাল খান, সুস্থ থাকুন

ঝাল খান, সুস্থ থাকুন
যারা ঝাল বেশি খান তাদের জন্য সুখবর। কারণ ঝাল খাবার স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ভালো। যারা একটু বেশি ঝাল খাবার খান তারা কিছু কিছু সমস্যা থেকে রেহাই পেয়ে যান। বেঁচে যান অনেকরকম রোগ থেকেও। চলুন জেনে নিই ঝাল খাবার খাওয়ার উপকারিতা-

১. গবেষণায় দেখা যায় মরিচ ও ঝাল খাবারের যৌগ ক্যাপসেইসিনের রয়েছে দেহের ক্যান্সারের কোষ ধ্বংস করার জাদুকরী ক্ষমতা। এছাড়াও এর আরো রয়েছে সাধারণ সর্দি কাশি ও স্ট্রোক প্রতিরোধের ক্ষমতা।

২. ঝাল খাবার কার্ডিওভ্যস্কুলার সমস্যা দূরে রাখতে সহায়তা করে থাকে। ঝাল খাবার দেহের খারাপ কোলেস্টোরল দূর করতে সহায়তা করে, এতে করে হৃদপিণ্ড সুস্থ থাকে। এছাড়াও ক্যাপসেইসিনের রয়েছে অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান, যা প্রদাহ বন্ধ করতেও সহায়তা করে।

৩. ওজন কমাতে চাইলে খাদ্য তালিকায় রাখুন একটু ঝাল খাবার। কারণ গবেষণায় দেখা গেছে, মরিচ যা ঝাল খাবারের মূল উৎস তাতে রয়েছে ক্যাপসেইসিন নামক যৌগ যা দেহে থার্মোজেনিক ইফেক্টের জন্য দায়ী। এই থার্মোজেনিক ইফেক্ট দেহের ক্যালরি ক্ষয় করতে বিশেষভাবে সহায়ক।

৪. যারা একেবারেই রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারেন তারা ঝাল খাবার খেয়ে রোগ দূর করার চেষ্টা করতে পারেন। গবেষণায় দেখা গেছে, ঝাল খাবার আমাদের দেহে সেরেটেনিনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় যাতে করে ভালোলাগা উৎপন্ন হয় মস্তিষ্কে। এতে করে রাগও দূর হয়ে যায় খানিক পরেই।

৫. গবেষণায় দেখা যায়, ঝাল খাবার এবং ঝাল মরিচ রক্তের শিরা উপশিরা নমনীয় করতে সহায়তা করে এবং উচ্চ রক্তচাপের ঝামেলা কমিয়ে দেয়।

No comments:

Post a Comment