ডায়াবেটিস প্রতিরোধে ৪ জরুরি বিষয়

ডায়াবেটিস প্রতিরোধে ৪ জরুরি বিষয়

ডায়াবেটিস বর্তমানে একটি মহামারীর নাম। এমন কোনো পরিবার হয়তো নেই, যেখানে এক-দুজন সদস্য এ রোগে ভুগছেন না। রক্তে সুগারের মাত্রা বেড়ে গেলে একে ডায়াবেটিস বলে। ডায়াবেটিস সাধারণত দুই প্রকার। একটি হলো টাইপ ওয়ান, অন্যটি টাইপ টু। ডায়াবেটিস প্রতিরোধে চারটি জরুরি বিষয় জানিয়েছে স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট টপ টেন হোম রেমেডি।


১. স্বাস্থ্যকর ও আঁশযুক্ত খাবার
টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া এক নম্বর পদক্ষেপ। পাশাপাশি খেতে হবে উচ্চ আঁশসমৃদ্ধ খাবার। ফল, সবজি, বাদাম ইত্যাদির মধ্যে রয়েছে উচ্চ পরিমাণ আঁশ।

২. বাড়তি ওজন কমান
স্থূলতা বা বাড়তি ওজন টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়। তাই আপনি স্থূল হলে ওজন কমানোর চেষ্টা করুন। উচ্চতার সঙ্গে ওজনের ভারসাম্য থাকলে হৃদরোগ, স্ট্রোক, উচ্চ রক্তচাপ ইত্যাদির ঝুঁকি কমে।

৩. ব্যায়াম করা
শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকা বা ব্যায়াম করা টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে কাজ করে। কেবল পাঁচ দিন ৩০ মিনিট হাঁটাও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়।

৪. ধূমপান পরিহার
যারা ধূমপায়ী, তাদের টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেশি থাকে। ধূমপান ইনসুলিন রেসিসটেন্স তৈরি করে। এটি ডায়াবেটিসের পূর্বাভাস। তাই ডায়াবেটিস প্রতিরোধে ধূমপান প্রতিরোধ করুন।

No comments:

Post a Comment