কফি পানের ভালো-মন্দ!

কফি পানের ভালো-মন্দ
কাজের ফাঁকে বা ক্লান্তি থেকে মুক্তি পেতে কফির জুড়ি নেই। অনেকেই দিনের শুরু করেন কফি দিয়ে। এ পানীয় যে মেজাজ পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে, তা তো আর অজানা নয়।
তবে সব খাবারের মতো কফিরও রয়েছে ভালো বা মন্দ দিক। কফি পানের উপকার ও অপকারের বিষয়ে জানিয়েছে জীবনধারাবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই।
কফির ভালো দিক:
কফি লিভারের স্বাস্থ্য ভালো রাখে এবং ক্যানসার প্রতিরোধে কাজ করে। এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। গবেষণায় বলা হয়, প্রতিদিন তিন থেকে চার কাপ কফি কিছু শারীরিক সমস্যা কমাতে পারে। তবে সেটি হতে হবে দুধ-চিনি ছাড়া।
১. কফি হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়।
২. ফ্যাটি লিভারের ঝুঁকি কমায়।
৩. লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি কমায়।
৪. ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়।
৫. কফি পানে শরীরে সতেজ অনুভূতি হয়। শরীর চাঙ্গা লাগে।
কফি পানের ক্ষতি:
যেকোনো খাবার পরিমিত পরিমাণ খাওয়া ভালো। আর তা না হলেই সমস্যা। খুব বেশি কফি পান করলে শরীরে নানা ক্ষতি হতে পারে।
১. খালি পেটে কফি খেলে বমি হয়।
২. কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ে।
৩. মাথাব্যথা হয়।
৪. ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে।
৫. বেশি কফি পান গর্ভধারণের ক্ষমতা কমিয়ে দিতে পারে।
৬. উদ্বেগ তৈরি হয়।
৭. অনিয়মিত হৃদস্পন্দন ও উচ্চ রক্তচাপের আশঙ্কা বাড়ায়।
৮. হরমোন ক্ষরণে অসুবিধা করে।

No comments:

Post a Comment